মালয়েশিয়ার ভিসা

মালয়েশিয়ার ভিসা নিয়ে সব বিস্তারিত মালয়েশিয়ার আজকের খবর 2022

মালয়েশিয়ার ভিসা নিয়ে প্রাথমিক আলোচনা 

মালয়েশিয়াতে যারা যেতে আগ্রহী তারা অবশ্যই ভালো করে এই লেখাটি পরবেন, তারপর আপনি মালয়েশিয়া সম্পর্কে সব কিছু জানতে পারবেন। মালয়েশিয়া একটি মুসলিম দেশ। সে দেশটি একটি ধনি দেশ। সেখানে অনেক কল কারখানা আছে যার জন্য অনেক কর্মীর দরকার হয়। তাই মালয়েশিয়া ভিসা পাইলেই আপনি গিয়েই কাজে লেফে পড়তে পারবেন। অনেক ধরনের ভিসা মানে অনেক ধরনের কাজের ভিসা আছে। আপনি যে কাজের ভিসায় যেতে চান যেতে পারবেন কিন্তু আমামদের দেশের মানুষকে তারা কোনো অফিসের কাজ দিবে না।

মালয়েশিয়া ভিসার দাম কত: দীর্ঘদিন ধরে করোনা মহামারীর কারণে মালয়েশিয়া ভিসা কিছুদিনের জন্য বন্ধ ছিল। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে বিধিনিষেধ মেনে মালয়েশিয়ার ভিসা চালু করা হয়েছে। প্রতিবছর বাংলাদেশ থেকে বহু সংখ্যক জনগণ মালয়েশিয়া যাচ্ছে। জনসংখ্যা রপ্তানির দিক থেকে বাংলাদেশ সৌদি আরবের পরে, মালয়েশিয়ায় বেশি জনশক্তি পাঠায় । 

আপনিও নিশ্চয়ই মালয়েশিয়া যেতে ইচ্ছুক। এই কারণে মালয়েশিয়া ভিসার দাম কত জানতে চাচ্ছেন। মালয়েশিয়া যাওয়ার আগে, মালয়েশিয়া ভিসা সংক্রান্ত সকল তথ্য জানতে হবে। কারণ মালয়েশিয়ায় বিভিন্ন ক্যাটাগরির ভিসা রয়েছে। ক্যাটাগরির উপর ভিত্তি করে, মালয়েশিয়ার ভিসার দাম নির্ধারণ হয়। চলুন, মালয়েশিয়া ভিসার দাম কত ও মালয়েশিয়া যেতে কত টাকা লাগবে তা জেনে নেই। 

আজকে যা যা জানবো আমরা , তা হলোঃ

  • মালয়েশিয়া ভিসার দাম কত
  • মালয়েশিয়ার ভিসা কবে খুলবে?
  • মালয়েশিয়া ফ্যাক্টরি ভিসা
  • মালয়েশিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসা
  • মালয়েশিয়া কৃষি ভিসা
  • মালয়েশিয়া কাজের ভিসা 
  • মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য কি কি লাগবে

মালয়েশিয়ার ভিসার দাম কত 

মালয়েশিয়া উচ্চ বিলাসী একটি উন্নত দেশ। প্রতি বছর মালয়েশিয়ায় বিভিন্ন দেশ থেকে জনসংখ্যা আমদানি করে। ঠিক তেমনি ভাবে, বাংলাদেশ থেকেও হাজার হাজার শ্রমিক প্রতি বছর মালয়েশিয়া যায়। কিছুদিনের জন্য মালয়েশিয়া ভিসা, বন্ধ করা হয়েছিল। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে মালয়েশিয়া ভিসা আবার পুনরায় চালু করা হয়। 

মালয়েশিয়া বিভিন্ন ক্যাটাগরির ভিসা রয়েছে। ক্যাটাগরি উপরে ভিত্তি করে, মালয়েশিয়া যেতে কত টাকা লাগবে এটা নির্ভর করে। আজকে আমরা মালয়েশিয়া সবগুলো ক্যাটাগরি নিয়ে আলোচনা করবো। মালয়েশিয়া ভিসার দাম কত সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে,আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন। 

বিগত সালে মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য ভিসা করতে ১-২ লক্ষ টাকা লাগতো। কিন্তু বর্তমানে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় নতুন একটি ঘোষণা দিয়েছে। কোন ব্যক্তি যদি মালয়েশিয়া যায়, তাহলে তার মালয়েশিয়া যাওয়ার বিমান খরচ ও মেডিকেল খরচ নিয়োগকর্তা কোম্পানি বহন করবে। এরকম ঘটনা যদি বাস্তবায়ন করা হয়, তাহলে মালয়েশিয়া যেটা খুব বেশি টাকা লাগবে না। 

মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য গত বছর একটা এজেন্সির সাথে চুক্তি করেছিল বাংলাদেশ প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়। কিন্তু এবার তেমন কোন এজেন্সির সাথে চুক্তি করা হয়নি। কিন্তু ধারণা করা হচ্ছে, একজন ব্যক্তি যদি মালয়েশিয়া নির্মাণ শ্রমিক হিসেবে যায়, তাহলে তার সকল খরচ বাবদ ২ লক্ষ টাকা লাগবে। এটা বিগত সালের ভিসার মূল্য তথ্য থেকে নেওয়া। এ বছরে মালয়েশিয়া যাওয়ার খরচ কম বেশি হতে পারে। 

মালয়েশিয়ার ভিসা কবে খুলবে? 

মালয়েশিয়া ভিসার দাম কত এটা জানার পর, আপনার ভিসার জন্য আবেদন করতে হবে। এজন্য আপনাকে প্রথমে জানতে হবে মালয়েশিয়ার ভিসা খোলা আছে কিনা। নির্দিষ্ট সময়ের জন্য মালয়েশিয়া ভিসা বন্ধ করা হয়েছিল। কিন্তু বর্তমান সময়ে মালয়েশিয়া ভিসা সম্পূর্ণরূপে খুলে দেওয়া হয়েছে। মালয়েশিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসা, মালয়েশিয়া কৃষি ভিসা ও মালয়েশিয়া টুরিস্ট ভিসা সম্পূর্ণভাবে খুলে দেওয়া হয়েছে। আপনি চাইলে খুব অল্প কিছু নিয়ম মেনে মালয়েশিয়া যেতে পারেন। 

মালয়েশিয়ার ফ্যাক্টরি ভিসা 

আমাদের দেশ থেকে প্রতিবছর প্রায় ১০ হাসান জনশক্তি মালয়েশিয়া যাচ্ছে। আমাদের দেশ থেকে যে সকল শ্রমিক মালয়েশিয়া যায়, তাদের বেশির ভাগ শ্রমিক ফ্যাক্টরি ভিসা নিয়ে যায়। যারা ম্যানেজার ফ্যাক্টরি ভিসা নিয়ে যাচ্ছে, তাদের বিভিন্ন ফ্যাক্টরিতে কাজ করতে হয়। 

নির্মাণ শ্রমিক তার মধ্যে উল্ল্যেখযোগ্য। আপনি যদি কোন কারখানায় কাজ করতে চান। তাহলে আপনাকে প্রথমে ফ্যাক্টরি ভিসা চয়েস করতে হবে। মালয়েশিয়াতে সবথেকে ফ্যাক্টরি বিষয়ে বহু জনসংখ্যা নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। এই কারণে আপনি যদি নির্মাণ শ্রমিক হিসেবে মালয়েশিয়া যেতে চান, তাহলে আপনাকে মালয়েশিয়া ফ্যাক্টরি ভিসা নিতে হবে। 

মালয়েশিয়ার ওয়ার্ক পারমিট ভিসা 

 

আপনি মালয়েশিয়া ভিসার দাম কত তা জেনে গেলেন। মালয়েশিয়া ভিসা ক্যাটাগরি মধ্যে ওয়ার্ক পারমিট ভিসা অন্যতম। প্রতিবছর প্রায় লক্ষ লক্ষ শ্রমিক ওয়ার্ক পারমিট ভিসার মাধ্যমে মালয়েশিয়া যাচ্ছে। যারা মালয়েশিয়ায় শ্রমিক হিসেবে কাজ করতে চায়, তারা মালয়েশিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসা নিয়ে যায়। 

মালয়েশিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসার জন্য আপনার নূন্যতম ২ লক্ষ টাকা লাগবে। এছাড়াও আপনার একটি বৈধ পাসপোর্ট থাকতে হবে। আপনার পাসপোর্ট এর মেয়াদ আছে কিনা এটা যাচাই করতে হবে। আবার আপনাকে কোভিড ১৯ ভাইরাসের টিকা নিতে হবে। এছাড়াও আপনার যদি নির্মাণ কাজের অভিজ্ঞতা না থাকে, তাহলে প্রশিক্ষণ দিতে হবে। এই কয়টি যোগ্যতা থাকলে, আপনি খুব সহজে মালয়েশিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন। 

মালয়েশিয়ার কৃষি ভিসা 

 

বর্তমান সময়ে মালয়েশিয়া কৃষি কাজ করার জন্য কিছু লোক নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। এছাড়াও মালয়েশিয়া কৃষি কাজের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। কৃষিকাজ ও কৃষি উৎপাদনের জন্য প্রতি বছর মালয়েশিয়া সরকার অনেক জনশক্তি আমদানি করে। সকল শ্রমিক কৃষিকাজ ও উৎপাদনে দক্ষ, তাদের মালয়েশিয়া নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে।

আপনি যদি মালয়েশিয়া কৃষি কাজ করার জন্য যেতে ইচ্ছুক হন, তাহলে আপনাকে সরকারি একটি এজেন্সির মাধ্যমে আবেদন করতে হবে। কারণ বর্তমানে মালয়েশিয়ায় ভিসা নিয়ে অনেক প্রতারণার শিকার হচ্ছে গ্রাহক। এছাড়াও মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য আপনার কিছু যোগ্যতা লাগবে। উপরে আমরা মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য কি কি যোগ্যতা লাগবে তা আলোচনা করেছি। 

মালয়েশিয়ার কাজের ভিসা  

মালয়েশিয়ার ভিসা

বর্তমানে মালয়েশিয়া কাজের ভিসা খুলে দেয়া হয়েছে। এছাড়াও নির্মাণ শ্রমিক নেওয়ার জন্য বাংলাদেশের কাছে রাষ্ট্রদূত পাঠিয়েছে মালয়েশিয়া। বাংলাদেশ প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় থেকে এমন ঘোষণা এসেছে। মালয়েশিয়া কাজের ভিসা নিয়ে গেলে, আপনাকে নির্মাণ শ্রমিক ও ড্রাইভিং এর কাজ করতে হবে। 

এছাড়াও ক্লিনিক পদে অনেক জনসংখ্যা নিয়োগ দেওয়া হবে। আপনি যদি মালয়েশিয়ায় গিয়ে কাজ করতে চান, তাহলে প্রথমে মালয়েশিয়া ভিসার দাম কত জানতে হবে। ভিসার দাম জানার পর, বাংলাদেশ প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীনে আছে,এমন সংস্থার কাছে গিয়ে আবেদন করতে হবে। আপনাকে আবারো বলছি, প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় ছাড়া কোথাও মালয়েশিয়া ভিসার জন্য আবেদন করবেন না। 

কিভাবে প্রতি মাসে 20 হাজার টাকা আয় করার উপায় গুলো জানুন জানুন 

মালয়েশিয়ার যাওয়ার জন্য কি কি লাগবে 

 

মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য আপনার কিছু যোগ্যতা থাকা প্রয়োজন। আপনার যদি মালয়েশিয়া যাওয়ার যোগ্যতা না থাকে, তাহলে বৈধভাবে কখনো মালয়েশিয়া যেতে পারবেন না। চলুন জেনে নেই, মালয়েশিয়া যাওয়ার যোগ্যতা কি কি।

  • মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য আপনার বয়স ১৮-৩৫ বছরের মধ্যে হতে হবে। 
  • আবেদনকারীর একটি সরকার স্বীকৃত বৈধ পাসপোর্ট থাকতে হবে। পাসপোর্টের মেয়াদ ন্যূনতম দুই বছর থাকতে হবে। 
  • মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য আবেদনকারীকে করোনা ভাইরাসের টিকা নিতে হবে। করোনা ভাইরাসের টিকা তাছাড়া মালয়েশিয়া ভিসার জন্য আবেদন করা যাবে না। 
  • আবেদনকারী জাতীয় পরিচয় পত্র অথবা জন্ম নিবন্ধন সনদ। 

উপরোক্ত এই কয়েকটি শর্ত পূরণ করে,আপনি সহজে মালয়েশিয়া যেতে পারবেন। আপনার যদি কোন যোগ্যতার কমতি থাকে, তাহলে মালয়েশিয়া যেতে আপনার দেরি হতে পারে। এই কারণে আপনাকে মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য সবগুলো যোগ্যতা অর্জন করতে হবে। 

অনেকে আছে এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাসের টিকা গ্রহণ করে নাই। আপনাকে মালয়েশিয়া যেতে হলে দুই ডোজ করোনার টিকা গ্রহণ করতে হবে। করোনা টিকা ছাড়া কেউ মালয়েশিয়া যেতে পারবে না। এছাড়াও আপনার যদি পাসপোর্ট এর মেয়াদ কম থাকে। তাহলে ই পাসপোর্ট এর জন্য আবেদন করুন। কারণ ই পাসপোর্ট এর মেয়াদ সর্বোচ্চ ১০ বছর থাকবে। 

মালয়েশিয়া ভিসার দাম কত নিয়ে শেষ কথা।

 

আজকে আমরা শিখলাম, মালয়েশিয়া ভিসার দাম কত ও মালয়েশিয়া যেতে কত টাকা লাগবে। এছাড়াও আরো শিখেছি, মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য একজন প্রার্থী কি কি যোগ্যতা লাগবে। মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য বর্তমানে নতুন একটি শর্ত আরোপ করা হয়েছে। মালয়েশিয়া যাওয়ার আগে অবশ্যই ২ ডোজ করোনা টিকা নিতে হবে। 

আপনি যদি মালয়েশিয়ায় যেতে ইচ্ছুক থাকেন, তাহলে অবশ্যই সরকারিভাবে মালয়েশিয়ায় যেতে হবে। কোন দালাল ধরে মালয়েশিয়া গেলে,আপনার অনেক ক্ষতি হবে। এই কারণে বাংলাদেশ প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে মালয়েশিয়ায় যেতে হবে। মালয়েশিয়া ভিসার দাম কত সম্পর্কে আরো জানতে চাইলে, আমাদের ব্লগে কমেন্ট করতে পারেন। 

মালয়েশিয়া ভিসা নিয়ে প্রশ্ন ও উত্তর 

 

মালয়েশিয়া যেতে কত টাকা লাগে ২০২২?

মালয়েশিয়া যেতে কত টাকা লাগে সে বিষয় সম্পূর্ণ নির্ভর করে আপনি কোন কাজে যাইতেছেন বা আপনাকে কে নিচ্ছে সে আপনাকে কতো টাকা দিয়ে নিবে। যে সময় যাচ্ছেন তখন টিকেটের দাম কতো? এ সব বিষয়ের উপর নির্ভর করে।

মালয়েশিয়া যেতে কত বয়স লাগে ২০২২?

মালয়েশিয়া যেতে আপনার বয়ষ ১৮ এর বেশী হতে হবে যেমন সৌদি আরব ২১ বচ্ছরের নিছে হলে ভিসা লাগে নাহ। 

মালয়েশিয়া কাজের বেতন কত?

মালয়েশিয়ার কাজের বেতন ১৫ হাজার থেকে শুরু করে ৮০ হাজার এবং এর উপরেও আছে। এটা নির্ভর করে আপনার কাজের উপর।

মালয়েশিয়া ভিসা প্রসেসিং কতো খরচ?

মালয়েশিয়ার ভিসা প্রসেসিং বেশী খরচ নেই। আপনি ১০ থেকে ১৫ এর মধ্যে ভিসা প্রসেসিং সেরে ফেলতে পারবেন। আরো কমেও করা যাবে। অবস্তার চাহিদা অনুযায়ী করচ হবে। আপনি আমাদের অফিসে যোগাযোগ করতে পারেন, আমরা অনেক কম টাকায় প্রসেসিং করে থাকি।

সেবা পেতেঃ

মেইল করুন [email protected]

অফিস Noyapaltan china town s3 trade international

Leave a Comment

Your email address will not be published.