ছেলেদের লিঙ্গ বড় করা

লিঙ্গের ব্যায়াম।ছেলেদের লিঙ্গ বড় করা একেবারে সম্ভব।পরীক্ষিত পদ্ধতি 2022

ছেলেদের লিঙ্গ বড় করার কার্যকর ও পরীক্ষিত পদ্ধতি সম্পর্কে জানুন

প্রায় একশত বছরের বেশি সময় ধরে ছেলেদের লিঙ্গ বড় করা জন্য বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা অথবা চেষ্টা করেও লিঙ্গের আকার পরিবর্তনে তেমন একটা ভাল ফলাফল/আবিষ্কার এখন পর্যন্ত করা সম্ভব হয়নি। তবে এটা সত্য যে বিভিন্ন খাবার বড়ি, ক্রিম, ব্যায়াম, লকিং মেশিন এবং অস্ত্রপ্রচারের মাধ্যমে এখন মানুষ তার পেনিসের আকার পরিবর্তনের চেষ্টা করে থাকে।

কিন্তু সত্যিকার অর্থে তাদের কোনটিই কার্যকর হয়না। বরং এ রকম চেষ্টার ফলে অনেক পুরুষই লিঙ্গত্থান সমস্যাসহ নানবিধ যৌন জটিলতায় পতিত হচ্ছেন প্রতিনিয়ত।আসলে লিঙ্গ মোটা করা কিংবা লম্বা করার মত কোনো ব্যবস্থা এখনো পর্যন্ত তৈরি হয়নি। আপনি যদি লিঙ্গ মোটা করার জন্যে কোনো কিছু করতে চান তাহলে সেটা আপনার জন্যে বিপদও ডেকে আনতে পারে। 

বস্তুত ছেলেদের লিঙ্গ বা যৌনাঙ্গ বা পুরুষাঙ্গ বড় হওয়া নির্ভর করে এতে রক্তের চাপ কেমন থাকে তার উপর। পুরুষাঙ্গ একটি মাংসপেশি অনেকেই মনে করেন অন্য সব মাংসপেশি যেমন ব্যায়াম করলে বৃদ্ধিপ্রাপ্ত হয়। তেমনি এটাও ব্যায়ামের মাধ্যমে বাড়াতে হবে। আর ব্যায়াম চালু না রাখলে যেমন মাংসপেশি শুকিয়ে যায় তেমন এটাও কমে যাবে। কিছু কিছু পেনাইল সার্জারির প্রচলন বিদেশে আছে।

তবে তা স্থায়ী কোনকিছু নয়। পেনিস পাম্প এর প্রচলন ও আছে। কিন্তু ব্যায়ামের চেয়ে ভাল কিছু আর নেই এবং এটাই সহজ উপায় এবং সঠিক। পুরুষাঙ্গের আকার বৃদ্ধির অনেক ধরনের জনপ্রিয় ব্যায়াম আছে বলে শোনা যায় ছেলেদের লিঙ্গ বড় করার জন্য। যথা   

স্ট্রেচিংঃ

প্রথমে লিঙ্গমুণ্ড পাঁচ আঙ্গুলে সামনে থেকে চেপে ধরুন এবার এটাকে সামনের দিকে টেনে ধরুন এমনভাবে ধরে রাখুন যাতে পিছলে না যায় এভাবে ২০ সেকেন্ড ধরে রাখুন ২০ সেকেন্ড পর ছেড়ে দিন এভাবে একটানা ২০ বার করুন (দিনে ২ বার) মাঝে মাঝে আপনার ইরেকশন হতে পারে৷ ইরেকশন হলে পেনিস্ কে শিখিল হওয়ার জন্য কিছু সময় দিন তারপর আবার করুন। এর ফলে ধীরে ধীরে আপনার পুরুষাঙ্গ দীর্ঘতায় বাড়বে৷

যে তিনটি ব্যায়ামের কথা বলা হয়েছে সেগুলো একত্রে প্রতিদিন দুইবার করে করুন। একসাথে না করলে লাভের সম্ভাবনা কম। এক্সারসাইজের সময় হস্তমৈথুন করবেন না। হস্তমৈথুন করলে ব্যায়াম করার কোন দরকারই নাই। কারণ তাতে কোন লাভ হবেনা।

জেল্কিংঃ

প্রথমে পেনিস কে জলে ধুয়ে নিন এবং মুছে ফেলুন। এরপর খানিকটা ক্রিম বা জেল জাতীয় পিচ্ছিল জিনিস, (তেল জাতীয় জিনিস হলেও হবে) যোগাড় করুন। এটি পেনিসে ভালভাবে মাখান (শিথিল অবস্থায়) এবার বুড়ো আঙ্গুল এবং তর্জনীরসাহায্যে “OK” সাইন এর মত করুন। এবার এই “OK” সাইন দিয়ে পেনিসের গোড়া ধরুন (একটু জোরে চেপে ধরতে হবে)।

এবার আস্তে আস্তে ভেতর থেকে বাইরের দিকে মর্দন করুন। জিনিসটা অনেকটাই হস্তমৈথুনের মতই। কিন্তু খেয়াল রাখবেন এটা শুধু পেনিসের গোঁড়া থেকে অগ্রভাগের দিকে। উল্টা দিকে করবেন না। এভাবে ৩০-৪০ বার করুন। দিনে দুইবার। এটি করার সময় আপনি নিজেই টের পাবেন যে আপনার লিঙ্গমুণ্ডে রক্তের চাপ বাড়ছে।

মাঝে মাঝে আপনার ইরেকশন হতে পারে ইরেকশন হলে পেনিস্ কে শিথিল হওয়ার জন্য কিছু সময় দিন। এটা করার সময় আপনার হস্তমৈথুনের ইচ্ছা জাগতে পারে। ইচ্ছাটাকে পাত্তা দিবেন না।

যদি ৩০-৪০ বারের আগেই বীর্য বেরিয়ে যেতে চায় তাহলে থামুন। উত্তেজনা প্রশমিত হলে আবার করুন এটি করার সময় লিমা সামান্য সাময়িক ব্যাথা বোধ হতে পারে। এছাড়া আপনি দেখবেন লিঙ্গমুণ্ডকে লাল হয়ে ফুলে উঠতে। রক্তের চাপের কারনে এমন হয়।

শেকিংঃ

প্রথমে আপনার পেনিস টাকে গোড়ার দিকে দুই আঙ্গুলে ধরুন (শিথিল অবস্থায়)। এরপর সেটাকে আস্তে আস্তে ঝাঁকাতে শুরু করুন আস্তে আস্তে ঝাঁকানোর…

গতি বাড়ান এভাবে একটানা ২০০-২৫০ বার ঝাকান মাঝে মাঝে আপনার ইরেকশন হতে পারে। ইরেকশন হলে পেনিস্ কে শিথিল হওয়ার জন্য কিছু সময় দিন। তারপর আবার করুন এভাবে দিনে দুইবার করুন এটা করার সময় আপনার হস্তমৈথুনের ইচ্ছা জাগতে পারে। ইচ্ছাটাকে পাত্তা দিবেন না তাহলে লিঙ্গ চিকন হয়ে যাবে

এটা করার সময় যদি হস্তমৈথুন করেন তাহলে ব্যায়াম করা আর না করা সমান কথা। যদি ২০০-২৫০ বারের আগেই বীর্য বেরিয়ে যেতে চায় তাহলে থামুন। উত্তেজনা প্রশমিত হলে আবার করুন এটা করলে আপনার পুরুষাঙ্গে রক্ত সঞ্চালন আশাতীত ভাবে বাড়বে। একটু কষ্ট করে হলেও এক্সারসাইজ চালু রাখুন বাদ দেবেন না।

স্ট্রেচিং ব্যায়াম

আপনি যে কোনও ম্যানুয়াল স্ট্রেচিং করার আগে:

আপনি অলস থাকাকালীনই এই ব্যায়ামগুলি করুন।ব্যায়াম ব্যথা বা অস্বস্তির কারণ হলে বন্ধ করুন।আপনি যখন সেগুলি করছেন তখন দেওয়াল বা টেবিলের বিপরীতে বসুন বা দাঁড়ান।আঘাত এড়াতে দিনে একবার বা দুবার এই ব্যায়ামগুলি করুন।আপনি যদি এই ব্যায়ামগুলিকে বেশিক্ষণ ধরে রাখতে চান বা আরও ঘন ঘন করতে চান তবে আপনার ডাক্তারের সাথে কথা বলুন।

ম্যানুয়ালি আপনার লিঙ্গ প্রসারিত করতে:

  • আপনার লিঙ্গের মাথা আঁকড়ে ধরুন।
  • আপনার লিঙ্গ উপরের দিকে টানুন, এটি প্রায় 10 সেকেন্ডের জন্য প্রসারিত করুন।
  • আপনার লিঙ্গটি আরও 10 সেকেন্ডের জন্য বাম দিকে টানুন, তারপরে ডানদিকে।
  • দিনে একবার বা দুবার প্রায় 5 মিনিটের জন্য এই পদক্ষেপগুলি পুনরাবৃত্তি করুন।

অথবা এটি চেষ্টা করুন:

  • আপনার লিঙ্গের মাথা আঁকড়ে ধরুন।
  • আপনার লিঙ্গ উপরের দিকে টানুন।
  • একই সময়ে আপনার লিঙ্গের গোড়ার চারপাশের অংশে টিপুন।
  • প্রায় 10 সেকেন্ডের জন্য এই অবস্থানটি ধরে রাখুন।
  • ডানদিকে আপনার লিঙ্গের গোড়ায় চাপ প্রয়োগ করে আপনার লিঙ্গটি বাম দিকে টেনে নিয়ে এই পদক্ষেপগুলি পুনরাবৃত্তি করুন।
  • বাম দিকে আপনার লিঙ্গের গোড়ায় চাপ প্রয়োগ করে আপনার লিঙ্গটি ডানদিকে টেনে নিয়ে এই পদক্ষেপগুলি পুনরাবৃত্তি করুন।
  • এই অনুশীলনটি দিনে একবার 2 মিনিট পর্যন্ত পুনরাবৃত্তি করুন।

আপনার লিঙ্গকে “জেল্ক” করতে:

  • আপনার তর্জনী এবং বুড়ো আঙুলকে ও আকারে রাখুন।
  • আপনার লিঙ্গের গোড়ায় ও-আকৃতির অঙ্গভঙ্গি রাখুন।
  • আপনি আপনার লিঙ্গ খাদ উপর হালকা চাপ না হওয়া পর্যন্ত O ছোট করুন.
  • ধীরে ধীরে আপনার লিঙ্গের মাথার দিকে আপনার আঙুল এবং থাম্বটি নাড়ান যতক্ষণ না আপনি ডগায় পৌঁছান। এটি বেদনাদায়ক মনে হলে চাপ কমিয়ে দিন।
  • প্রায় 20 থেকে 30 মিনিটের জন্য প্রতিদিন একবার এটি পুনরাবৃত্তি করুন।

ছেলেদের লিঙ্গ বড় করা নিয়ে কিছু প্রশ্ন এবং উত্তর

প্রশ্নঃ লিঙ্গের ব্যায়ামের কারনে কোনো ক্ষতি হবে? 

উত্তরঃ আমাদের যাদের লিঙ্গ চিকন বা একটু এবং তারাই মূলত লিঙ্গকে মোটা করার জন্য এবং লম্বা করার জন্য ব্যায়ম করে থাকি। কিন্তু এখানে আমরা কয়েক ভাবে ব্যায়াম করি আর সে ব্যায়ামে আমাদের লিঙ্গের ক্ষতি হবে কি না সে বিষয়ে একটু চিন্তা সন্দেহ থেকে যায়।

আচ্ছা আমরা যখন ব্যায়ম করি তখন আমরা আমাদের হাত দিয়ে লিঙ্গকে সামনে উপরে নিচে টান দেই।তারপর আমরা এটাকে ঝাঁকি দেই গোঁড়ায় ধরে। এতে আমাদের লিঙ্কে আঘাত পাওয়ার মতো কোনো ঘটনা ঘটে নাহ।আর যদি লিঙ্গে আঘাত না পরে তাহলে আমাদের কোনো সমস্যা হবে নাহ।

একটা জিনিস মাথায় রাখতে হবে, ব্যায়াম করার সময় লিঙ্গে যাতে কোনো আঘাত না খায়৷ আপনার বিচিতে যাতে কোনো আঘাত না পরে। এ বিষয়গুলো খেয়াল করে ব্যায়াম কন্টিনিউ করবেন। দেখবেন অনেক পরিবর্তন হবে। আর পারলে তরল কিছু হাতে নিয়ে ব্যায়া করবেন।

লিঙ্গের ব্যায়ামের উপকারীতা এবং অপকারীতা

ছেলেদের লিঙ্গ বড় করা ব্যায়ামে বা লিঙ্গের ব্যায়ামের উপকারিতার পাশাপাশি কিছু অপকারীতা আছে।সেগুলো হলোঃ 

উপকার 
  • আমাদের লিঙ্ক যাদের চিকন তাদের লিঙ্গ মোটা হবে। এবং সেটা আগের থেকে বেশি শক্ত হবে।
  • যাদের লিঙ্ক ছোট তাদের লিঙ্গ নিয়মিত ব্যায়ামের ফলে একটু লম্বা হবে। অবশ্যই একটু লম্বা হবেই।
  • আমাদের বীর্য ধরে রাখার মতো শক্তি হবে।আমরা বীর্যকে অনেক সময় ধরে রাখা শিখে যাবো ব্যায়ামের মাধ্যমে। 
অপকার
  • আপনি যখন ব্যায়াম করতে যাবেন তখন আপনার অনেক খারাপ চিন্তা আসবে। তাতে আপনি হস্তমৈথুন করে ফেলতে পারেন। এতে আপনার লাভের চেয়ে ক্ষতি হবে।
  • আপনার হাতে তরলর পদার্থ লওয়ার পর লিঙ্গে হাত দিলে আপনার উত্তেজনা বাড়তে পারে।  সে মূহুর্তে নিজেকে কন্ট্রোল করবেন আর না হয় আপনার লিঙ্গ মোটা হওয়ার পরিবর্তে আরে চিকন হয়ে যাবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *